ঘূর্ণিঝড় গুলাব: আজ মাঝরাত্রেই করছে ল্যান্ডফল। জেনে নিন পশ্চিমবঙ্গে কি সম্ভাবনা।



ঘূর্ণিঝড় 'গুলাব'  আজ অর্থাৎ  রোববার (২রা  সেপ্টেম্বর, ২০২১) ওড়িশা ও অন্ধ্র প্রদেশে উপকূলে আছড়ে পড়তে পারে।  বর্তমানে গোপালপুর (ওড়িশা) থেকে প্রায় ১ কিমি  কিলোমিটার পূর্ব-দক্ষিণ-পূর্ব এবং কলিঙ্গাপত্তনম (অন্ধ্র প্রদেশ) থেকে ২  কিলোমিটার পূর্ব-উত্তর-পূর্বে অবস্থান করছে। ভারতের আবহাওয়া অধিদফতরের (আইএমডি) মতে, ঘূর্ণিঝড় গুলাব প্রায় পশ্চিমের দিকে অগ্রসর হয়ে উত্তর অন্ধ্র প্রদেশ -দক্ষিণ ওড়িশা উপকূল অতিক্রম করে কলিঙ্গাপত্তনম ও গোপালপুরের মধ্যে যেতে পারে। এই  ঘূর্ণিঝড় এর গতিবেগ ঘন্টায় ৭৫ থেকে ৮৫ কিমি এবং সর্বোচ গতিবেগ ৯৫ কিমি পর্যন্ত হতে পারে বলে সতর্কবার্তা জানানো হয়েছে। 

আইএমডি পূর্বাভাস দিয়েছে যে তেলেঙ্গানার উপরও বিভিন্ন জায়গায়  ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা। ল্যান্ডফল এর সময় উপকূলবর্তী জায়গা শ্রীকাকুলাম , ভাইজাগ , সমপেটা এবং গ্যাঞ্জাম জেলা প্লাবিত করার সম্ভাবনা রয়েছে। 

দুর্যোগ মোকাবিলায় এনডিআরএফ মোতায়ন 

এদিকে, ওড়িশা  অ্যাকশন ফোর্সের (ওডিআরএএফ) ৪২ টি দল এবং জাতীয় দুর্যোগ প্রতিক্রিয়া বাহিনীর (এনডিআরএফ) ২৪ টি স্কোয়াড, ফায়ার ব্রিগেড কর্মীদের প্রায় ১০২ টি দল নিয়ে সাতটি জেলায় পাঠানো হয়েছে - গজপতি , গঞ্জাম, রায়গড়া, কোরাপুট, মালকানগিরি, নবরংপুর এবং কান্ধমাল। অন্ধ্রপ্রদেশে পাঁচটি এনডিআরএফ দল মোতায়েন করা হয়েছে সম্ভাব্য দুর্যোগ মোকাবিলার জন্য।

ঘূর্ণিঝড় গুলাব পশ্চিমবঙ্গে কোথায় আছেড়ে পড়তে পারে : 

আইএমডি কলকাতার ডিরেক্টর জি কে দাস শনিবার জানিয়েছেন, ঘূর্ণিঝড় গুলাব পশ্চিমবঙ্গ উপকূলে  পৌঁছতে পারে ২৯সে  সেপ্টেম্বর। তবে ইতিমধ্যে নবান্ন থেকে জারি করা হয়েছে সতর্কবার্তা।  "ঝোড়ো বাতাসের সঙ্গে ভারী বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা রয়েছে ২৮ ও ২৯ সেপ্টেম্বর দক্ষিণবঙ্গে।   ২৮ সে সেপ্টেম্বর কলকাতা, উত্তর 24 পরগনা, পূর্ব ও পশ্চিম মেদিনীপুর, ঝাড়গ্রাম, হাওড়া, হুগলিতে ভারী বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা রয়েছে।" আইএমডি কলকাতার ডিরেক্টর জি কে দাসএএনআইকে জানিয়েছেন।তিনি বলেন, "উত্তর-পূর্ব এবং তৎসংলগ্ন পূর্ব-মধ্য বঙ্গোপসাগর জুড়ে একটি ঘূর্ণিঝড় সৃষ্টি হতে পারে। পরবর্তী সময়ে  এটি একটি নিম্নচাপ এলাকা হবে এবং ২ ২৯ সে সেপ্টেম্বরের দিকে পশ্চিমবঙ্গ উপকূলে পৌঁছতে পারে।" 

Post a Comment

Previous Post Next Post