বর্তমানে এই খবর আড়োলন ফেলেছে

বড়ই দুঃসময়ে কাটছে  খান পরিবারের!! এই দুঃসময়ে খান পরিবারের যদিও পাশে আছেন তাঁর ভক্ত সহ সমস্ত কলাকুশলীরাও। বার বারই ছেলে আরিয়ানের জামিন খারিজ হয়ে যাচ্ছে। হয়তো এতো সহজে আরিয়ানের বাড়ি ফেরা হয়ে উঠবে না। 

আর ৫ জন আসামির মতনই আর্থার রোডের জেলখানাই আপাতত তার  ঠিকানা। এন সি পি এস অর্থাৎ নারকটিক ড্রাগস এন্ড সাইকোত্রপিক সাবস্টেন্স আইনের আওতায় আরিয়ানের বিরুদ্ধে একাধিক ধারায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। শুধুমাত্র আরিয়ান নয় তার সঙ্গীদের বিরুদ্ধেও মামলা দায়ের হয়েছে।  যে কারণে বারবারই তার জামিনের প্রস্তাব খারিজ হয়ে যাচ্ছে।

 এদিন নগর দায়রা আদালতের অতিরিক্ত মুখ্য বিচারক নেরিলকার জানান যে, কোন অপরাধের জন্য যদি তিন বছরের বেশি শাস্তি ধার্য করা হয় তাহলে তাতে ম্যাজিস্ট্রেট আদালতও সেই অপরাধের জামিন মঞ্জুর করতে পারেনা। তিনি আরো জানান যে, আরিয়ান ও তার সঙ্গীদের গত শনিবার মুম্বাই থেকে গোয়া গামী একটি প্রমোদ তরী থেকে গ্রেপ্তার করা হয় এবং তাতে পাওয়া যায় নানান ড্রাগস, যেমন ১৩ গ্রাম কোকেন, ২১ গ্রাম চরস, ২২ টি এম ডি এন এ ও নগদ ১ লক্ষ ৩৩ হাজার টাকা। 

এমনকি তাদের জুতো ভেতর থেকেও মাদক পাওয়া যায়। তাই বলা যেতে পারে, এসব কিছুর থেকে এখনই এত সহজে মুক্তি পাচ্ছেন না শাহরুখ পুত্র আরিয়ান। তার বিরুদ্ধে যদি এসমস্ত কিছু তথ্য সত্য প্রমাণিত হয়, তা হলে তিন বছরের সশ্রম কারাদণ্ড হতে পারে। এই খবর মিডিয়ায় আসার সাথে সাথেই আলোড়ন তুলেছে সবার মনে।

Post a Comment

Previous Post Next Post