জুকারবার্গের এক পয়সাও ক্ষতি হয়নি

ঠিক যেন এক লহমা পৃথিবী থমকে দাঁড়িয়ে গেছে। এই ঘটনা সেটিই প্রমাণ করলো। আমরা কতটা যান্ত্রিক হয়ে পড়েছি, আমাদের জীবন কতকটা রোবটিক্স এর মত হয়ে গেছে।

 আমরা সবাই জানি  টানা ৬ ঘণ্টার জন্য বন্ধ হয়ে গিয়েছিল ফেসবুক হোয়াটসঅ্যাপ মেসেঞ্জার মত সমস্ত সোশ্যাল সাইট গুলি। কোটি কোটি মানুষ নাজেহাল হয়ে যায় এই কয়েকঘণ্টা তেই। তবে সব থেকে শুনলে আশ্চর্য হতে হয় এই ৬ ঘন্টায় ফেসবুকের সিইও মার্ক জুকারবার্গ ৬০০ কোটি ডলার সম্পত্তি খুইয়েছেন এক ঝটকায়, এবং সাথে সাথে এই সংস্থা শেয়ারের দাম এরও পতন ঘটে,  ৪.৯% কমে যায়। এই নিয়ে গোটা সেপ্টেম্বর মাসে ১৫ শতাংশ পতন ঘটেছে ফেসবুক শেয়ারে।

 তবে এই পরিষেবা যে মূলত স্তব্ধ হয়ে গিয়েছিল তার পেছনে আসল কারণ ছিল হুইসেলব্লোয়ার।ফেসবুকের গোপন তথ্য ফাঁস করে দিয়েছেন তিনিই, তাও আবার সংবাদমাধ্যমের সামনে সেখানে। তিনি বলেন ফেসবুক টাকার জন্য কি কি করতে পারে সে সমস্ত কিছুর বিবৃতি দিয়েছেন এই মহিলা, আর তাতেই শেয়ারে বিনিয়োগকারীরা ফেসবুকের উপর থেকে ভরসা হারিয়েছেন।তাই গত সোমবার হঠাৎই কার্যত অচল হয়ে যায় ফেসবুকের অধীনে থাকা সবকটি অ্যাপই।

 সোশ্যাল মিডিয়া ব্যবহারকারীরা তাদের ফিডে নতুন কোন আপডেট পাচ্ছিলেন না, যার জেরে অস্বস্তিতে পড়েন সমস্ত মানুষ। তবে এতে সাধারণ মানুষের যতটা না ক্ষতি হয়েছে, তার থেকে হয়তো বেশী ক্ষতি হয়েছে মার্ক জুকারবার্গ এর কারণ তার সম্পত্তির পরিমাণ নেমেছে অনেকটাই প্রায় ১২০০ কোটি ডলার। যে সম্পত্তির পরিমাণ ছিল ১৪০০ কোটি ডলার। সপ্তাহখানেক জুকেরবার্গ ৪ নম্বরে ছিলেন ব্লুমবার্গের বিলিভার ইনডেক্স এর তালিকা অনুযায়ী, বর্তমানে তিনি এখন ৫ম স্থান অধিকার করেছেন। যার ফলে একধাপ এগিয়ে গেলেন মাইক্রোসফট্ কর্তা বিল গেটস।

Post a Comment

Previous Post Next Post