ট্যুইটারে শোকবার্তা দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী

ফুলবাড়ির মরণফাঁদ!!! মৃতদেহ সৎকার করতে গিয়ে নিজেরাই মৃত্যুর মুখে ঢলে পড়লেন, এমনই ঘটনা ঘটেছে নদীয়ার ফুলবাড়িতে। যেখানে পথদুর্ঘটনায় বলি হয়েছেন ১৮ জন, উত্তর ২৪ পরগনার বাগদা গ্রামের ৯০ বছরের বৃদ্ধা শিবানী মুহুরীর মৃতদেহ সৎকার করতে গিয়েই এমন পথদুর্ঘটনা।

বলা যেতে পারে এক মৃত্যুর শোক বদলে গেল মৃত্যুমিছিলে। একই পরিবারের ১০ থেকে ১২ জন মারা গেছেন, যা অত্যন্ত মর্মান্তিক। দুর্ঘটনার কারণ হিসেবে যা জানা যাচ্ছে তা হল ঘন কুয়াশার জেরে পাথরবোঝাই লরির সাথে ধাক্কা লেগেই এ দুর্ঘটনা ঘটে। তা ছাড়াও উঠে আসছে আরও নানান অভিযোগ, যেমন রাস্তার পাশে পড়ে থাকা  দিনের-পর-দিন বালি স্টোনচিপ, যার ফলে রাস্তাঘাটে আরো বাড়িয়ে দিচ্ছে বিপদএর ঝুঁকি।

যদিও এ বিষয় নিয়ে পুলিশ অধিকর্তারা,  তারা তেমন কোনো পদক্ষেপ এখনো পর্যন্ত নেয় নি।  তবে বিষয়টি তদন্ত করে দেখা হচ্ছে ঠিক কী কারণে এবং কিভাবে ঘটল এই দুর্ঘটনা। তবে কিছু মানুষ আহতও হয়েছে, আহত অবস্থায়  ৬ জনকে কলকাতায় চিকিৎসার জন্য পাঠানো হয়েছে। এক কথায় বলা যায় বাগদা গ্রাম এখন শুধুমাত্র স্বজন হারানোর হাহাকারে ডুবে।

 এই নিয়ে টুইটারে এদিন টুইট করে মুখ্যমন্ত্রী মাননীয়া মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়, যেখানে তিনি শোক জ্ঞাপন করেছেন, পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানিয়েছেন এবং সব রকম সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দেবেন বলে আশ্বাসও জানিয়েছেন। এক কথায় বলা যায় নদীয়ার এই ভয়াবহ দুর্ঘটনা অত্যন্ত মর্মান্তিক, ইতিমধ্যেই খবরটি পড়ে সোশ্যাল মিডিয়ার সকলেই দুঃখ প্রকাশ করেছেন এবং পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানিয়েছেন।

Post a Comment

Previous Post Next Post