চিন্তিত কেন্দ্রীয় সরকার



                    করোনা ভাইরাসের প্রথম এবং দ্বিতীয় ঢেউয়ের ধাক্কা ধীরে ধীরে কাটিয়ে উঠতে শুরু করেছে ভারত। ধীরে ধীরে স্বাভাবিক হচ্ছে জনজীবন থেকে যানবাহন। চিন্তা বাড়িয়ে এবার ভারতে ঢুকে পড়ল করোনা ভাইরাসের ভ্যারিয়েন্ট ওমিক্রন। কর্নাটকে দুই রোগীর শরীরে মিলল এর হদিশ।

           বৃহস্পতিবার কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রক জানিয়েছেন, এখনও পর্যন্ত ২৯ টি দেশে ওমিক্রন আক্রান্ত রোগীর হদিশ মিলেছে। ভারতে এতদিন অবধি কোনো কেস ছিল না। কিন্তু, বৃহস্পতিবারই কর্নাটকে দুই করোনা আক্রান্ত রোগীর পরীক্ষা করা হয়, যাদের শরীরে করোনা ভাইরাসের এই নতুন রূপের খোঁজ মিলেছে। আক্রান্তদের মধ্যে একজন পুরুষ এবং একজন মহিলা। বয়স যথাক্রমে ৬৬ বছর ও ৪৬ বছর। সারা বিশ্বে এখনও অবধি ৩৭৩ জন ভাইরাসের এই নয়া রূপে আক্রান্ত হয়েছে।

        মন্ত্রকের যুগ্মসচিব লব আগরওয়াল টুইট করে জানিয়েছেন, ‘এখনও পর্যন্ত ওমিক্রনের যে সব রোগীর হদিশ মিলেছে, সকলেরই মৃদু উপসর্গ ধরা পড়েছে। এর সংক্রমণে মারাত্মক কোনও উপসর্গের কথা এখনও পর্যন্ত শোনা যায়নি। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থাও কোভিডের এই নতুন রূপের প্রকৃতি নিয়ে গবেষণা করছে।’

           কোভিডের এই নতুন রূপ নিয়ে আতঙ্কিত গোটা বিশ্ব। আবারও কি তৃতীয় ঢেউ আসতে চলেছে ? আবারও কি একইভাবে প্রাণ হারাবেন লক্ষ লক্ষ মানুষ ? করোনা টিকা কি কার্যকরী হবে? এইসব নিয়ে গবেষণা চলছে। ইতিমধ্যেই আন্তর্জাতিক বিমান চলাচলে নিষেধাজ্ঞা জারি হয়েছে। বিশেষজ্ঞদের অধিকাংশই জানিয়েছেন, "উদ্বেগের মত কোনো কারণ এখনও গবেষণায় সামনে আসেনি। তবে সকলের উচিৎ, এখন থেকেই সাবধানতা অবলম্বন করা"।


                           

Post a Comment

Previous Post Next Post