শখপূরনটাই ওই ব্যাক্তির সবকিছু

এ এক অবাক কান্ড! যদিও জনগণের মধ্যে ভিআইপির নম্বর প্লেটের চাহিদা থাকার দরুনই এই কাণ্ড ঘটে, সূত্রমারফত জানা গেছে হরিয়ানা সরকার তাঁর সমস্ত ভিআইপি নম্বরপ্লেটগুলি বিক্রি করে ১৮ কোটি রুপি পর্যন্ত আয় করে থাকে।

 ঘটনাটি ঘটেছে চণ্ডীগড়ে, সেখানকার বাসিন্দা ব্রিজ মোহন নামের এক ব্যক্তি, যিনি পেশায় একজন বিজ্ঞাপনী সংস্থার মালিক, সম্প্রতি তিনি একটি স্কুটি কিনেছেন, দাম মাত্র ৭১ হাজার টাকা, অথচ তাতে তাঁর পছন্দসই নম্বর প্লেট বসাতে খরচ হলো ১৫ লাখ ৪৪ হাজার রুপি, চন্ডিগড় রেজিস্টারিং এন্ড লাইসেন্স অথরিটি ৩৭৮ টি নম্বরপ্লেটগুলি থেকে তাদের বাড়তি আয় হয়েছিল দেড় কোটি রুপি,ব্রিজের কেনা ০০০১ নম্বর প্লেট এতদিন হরিয়ানা সরকারের ১৭৯ টি গাড়িতে ব্যবহৃত হয়েছিল যার মধ্যে মুখ্যমন্ত্রীর গাড়িই চারটি, তিনি পরবর্তীকালে  সেই নম্বর বিক্রির জন্য ভাবেন এবং নিলামে দাম রাখেন পাঁচ লাখ রুপি ।

 তবে আপাতত তিনি স্কুটিতেই  ব্যবহার করবেন এই ভিআইপি নম্বরপ্লেটটি, আগামী দীপাবলিতে নতুন গাড়ি কেনার প্ল্যান রয়েছে তাঁর, তখন সেটি সেই গাড়িতে ব্যবহার করবেন; তার আগে পর্যন্ত স্কুটিতেই ব্যবহার করবেন। ভারতের বাজারে হোন্ডা একটিভা মডেলের স্কুটারের দাম মাত্র ৭১ হাজার রুপি। তবে আপাতত এই ঘটনাটি চাঞ্চল্য ফেলেছে গোটা সোশাল মিডিয়ায়, একটি প্রচলিত প্রবাহের সূত্র খুবই মনে পড়ছে তা হল,  খাজনার থেকে বাজনা বেশি, তবে মানুষের শখের কাছে টাকার মূল্য হয়তো কিছুই থাকেনা, এ ক্ষেত্রেও তাই ব্রিজের শখের কাছে টাকার অংকটা তাঁর কাছে কিছুই নয়, ইচ্ছেপূরণটাই জীবনের লক্ষ্য হওয়া উচিত।

Post a Comment

Previous Post Next Post