মৃত বাবার কন্যা এখনোও নাবালিকা

এহেন ঘটনায় এলাকাজুড়ে ছড়িয়েছে চাঞ্চল্য, পরিবারে নেমে এসেছে শোখের ছায়া, ঘটনাটি ঘটেছে কোচবিহার মাথাভাঙ্গা এলাকার দু'নম্বর ওয়ার্ডে, যেখানে বাস করতেন শিবুচন্দ্র নামে এক ব্যক্তি ও তাঁর পরিবার।

 তার মেয়ে এখনো নাবালিকা, তার সাথে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠেছিল এক যুবকের, যার নাম বিশাল মন্ডল, তাঁর সাথে তাঁর মেয়ের রাতভর ফোনে কথা হত, আর তা নিয়ে বকাবকি শুরু করেন শিবু চন্দ্র এবং তাঁর স্ত্রী। গত রবিবার রাতে কথা বলতে বাধা দেন তাঁর মা, যার ফলে বিবাদ সৃষ্টি হয় মা মেয়ের মধ্যে। তার কিছুটা পরেই প্রেমিক বিশাল তাঁর এক বন্ধুকে নিয়ে এসে উপস্থিত হন নাবালিকার বাড়িতে এবং ফোনে কথা বলতে না দেওয়া তুমুল মারধর করেন প্রেমিকার বাবাকে।

 দুই যুবকের বেদম প্রহারে আহত হন নাবালিকার বাবা, তড়িঘড়ি তাঁকে নিয়ে যাওয়া হয় মাথাভাঙ্গা হাসপাতালে, কিন্তু ডাক্তাররা জানায় শিবু বাবুর ততক্ষণে মৃত্যু ঘটে গিয়েছে, খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে উপস্থিত মাথাভাঙ্গা থানার পুলিশ। পুলিশ এসে দেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য পাঠায়, ইতিমধ্যেই অভিযুক্তদের গ্রেপ্তার করা হয়েছে, চলছে জিজ্ঞাসাবাদও।

  তবে শিবু স্ত্রীর অভিযোগ, সেদিন রাত্রে তাঁর মেয়ের সাথে বচসা তৈরি হওয়ার সাথে সাথে, ছেলেটিকেও শোনানো হয়েছিল নানান কথা, বলা হয়েছিল যাতে তাঁরা কোনভাবেই রাত্রে কথা না বলে, কিন্তু তাতে বিশাল তার এক বন্ধুকে নিয়ে সে চড়াও হয় তাদের বাড়িতে এবং তাঁর স্বামীকে পিটিয়ে খুন করে। এ হেন দাবিতে পুলিশ গ্রেপ্তার করেছে তাদের দু'জনকেই, তবে এহেন ঘটনাতে সোশ্যাল মিডিয়া যথেষ্ট উত্তাল, কারণ বর্তমানে এই ধরনের নানান ঘটনা যেভাবে সামনে আসছে আগামী সময় অত্যন্ত কঠিন হয়ে উঠছে বলে সকলেই মনে করছে।

Post a Comment

Previous Post Next Post