গান্ধীজির স্মৃতি বিজড়িত সামগ্রী এবার নিলামে

  "সত্য এবং অহিংসা - আমার দুই ঈশ্বর" - এই উক্তিটির সাথে আমরা সবাই কম বেশি পরিচিত। তিনি এই মন্ত্রে বিশ্বাসী ছিলেন, তিনি হলেন মোহনদাস করমচাঁদ গান্ধী। এবার তাঁরই স্মৃতি বিজড়িত কিছু সামগ্রী নিলামে উঠতে চলেছে। 

        তবে, এইবারই প্রথম নয়। এর আগেও ২০২০ সালে গান্ধীজির ব্যবহৃত একটি চশমা নিলামে তুলেছিল ইংল্যান্ডের "ইস্ট ব্রিস্টল অকশানস" সংস্থাটি। নিলামে যার দাম উঠেছিল আড়াই কোটি টাকা। বিদেশি মুদ্রায় এর মূল্য আড়াই লক্ষ পাউন্ড। আবারও, ২০২২ সালে সেই সংস্থার উদ্যোগেই গান্ধীজির আরও কিছু ব্যবহৃত সামগ্রী নিলামে উঠবে বলে জানা গিয়েছে।

          এবারের নিলামে গান্ধীজির কোন কোন স্মৃতি বিজড়িত সামগ্রী থাকবে ? বিশেষ সূত্রের খবর, এবারের নিলামে রয়েছে গান্ধীজির নিজের হাতে বানানো এবং ব্যবহৃত খড়ম, তাঁর হাতে বোনা দু টুকরো খদ্দরের কাপড়, তাঁর ব্যবহার করা দুটি চশমা এবং একটি কালির দোয়াত। এছাড়াও, গান্ধীজির বেশ কিছু ছবির সঙ্গে থাকবে তাঁর জীবদ্দশায় তোলা শেষ ছবিটিও (নিলাম সংস্থার অনুমান)। তাছাড়া রয়েছে, গান্ধীজির নিজের হাতে লেখা কয়েকটি চিঠি এবং গান্ধীজিকে লেখা সর্দার বল্লভভাই প্যাটেলের লেখা চিঠি। নিলাম সংস্থা অনুমান করছে, এই সমস্ত সামগ্রীর দাম পাঁচ কোটি পর্যন্ত উঠতে পারে। 

          নিলাম সংস্থার প্রতিনিধি ওয়ান্ড্রু স্ট্রো জানিয়েছেন, "২১ শে মে পর্যন্ত অনলাইনে নিলাম জারি থাকবে। যারা যারা এই জিনিসগুলো সামনাসামনি দেখতে ইচ্ছুক, তারা ব্রিস্টল দফতরে গিয়ে জিনিসগুলো দেখে আসতে পারেন"। 

         তবে, নিলামের খবর ছড়িয়ে পড়তেই মিশ্র প্রতিক্রিয়া ভেসে এসেছে নেটিজেনদের তরফ থেকে। নেটিজেনদের একাংশ মনে করেন, এই সকল সামগ্রীর মূল্য অপরিসীম। তাই, এইগুলি নিলামে তোলার অর্থ হলো গান্ধীজির অবমাননা। আপনি কি মনে করেন ? কমেন্ট করে জানান আমাদের ।।

Post a Comment

Previous Post Next Post