ফুটে উঠলো জলপ্রপাতের ভয়ংকর রুপ ; রেকর্ড বৃষ্টি মৌসিনরামে

    মেঘালয়ের মৌসিনরাম, ভারত তথা সমগ্র পৃথিবীর আদ্রতম স্থান হিসেবে বিবেচিত। প্রায় ৭-৮ দিন ধরে এই অঞ্চলে একনাগাড়ে প্রবল বৃষ্টিপাত জারি রয়েছে। কিছু অঞ্চলে বৃষ্টিপাত রেকর্ড ব্রেক করেছে, উদাহরণস্বরূপ বলা যায়— ১৬ জুন সকাল ৮:৩০ মিনিট থেকে ১৭ জুন প্রায় সকাল পর্যন্ত ( ২৪ ঘণ্টায়) ১০০ সেমি পর্যন্ত বৃষ্টিপাত হয়েছে । ৬০ বছরের বৃষ্টিপাতের রেকর্ড ভেঙেছে এবছরের বৃষ্টিপাত।

 এই বৃষ্টিকালীন পরিস্থিতির একটি ভয়ঙ্কর ভিডিও ব্যাপক ভাইরাল হয়েছে নেট মাধ্যমে। না, তীব্র গতিতে জলস্রোতের শব্দকে মেঘের গর্জন ভেবে ভুল করবেন না, ওটা আসলে অতিরিক্ত বৃষ্টির তোড়ে জলপ্রপাতের জলোচ্ছাসের শব্দ।

 পর্যটকদের দ্বারা ক্যামেরাবন্দি একটি ভিডিও থেকেই নেট মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়েছে মৌসিনরামে প্রকৃতির করাল আঘাতের  চিত্র। এই ভিডিওটি ক্যাপচার করা হয়েছে একটু সেতুর ওপর থেকে। সেতুটি থেকে কিঞ্চিৎ দূরেই রয়েছে একটি জলপ্রপাত। সেতুর উপরে রয়েছে গাড়িটির মধ্যে পর্যটকরা এই ভয়ঙ্কর প্রাকৃতিক দুর্যোগ কেটে যাওয়ার জন্য প্রার্থনা করছেন এবং এই দুর্যোগ কিছুটা কাটলেই তাদের গাড়ি এগোবে এমনটাই জানা গিয়েছে ভিডিওতে শুনতে পাওয়া তাদের কথোপকথন থেকে। কোন একজন পর্যটক কে বলতে শোনা গিয়েছে —" এগুলি মেঘ নয়, বৃষ্টির জল " । ভিডিওটিতে মাঝেমধ্যেই কোন এক মহিলাকে আতঙ্কিত গলায় " হে ঈশ্বর " বলে চিৎকার করতে শোনা যায়। গাড়ির চালক গাড়িটা কিছুটা এগোনোর সিদ্ধান্ত নিলে, কোন এক পর্যটক পিছিয়ে তাকে গাড়ি এগোতে নিষেধ করেন এবং বলেন " এখানে বাচ্চারা আছে" ।

 আসামের প্রায় তিন হাজারের কাছাকাছি গ্রাম বন্যায় প্লাবিত হয়েছে, প্রায় ৪৩ হাজার হেক্টর কৃষিজমি বর্তমানে জলে তলিয়ে গেছে। এরই মধ্যে নৌকাডুবি হয়েছে, নৌকাডুবিতে মৃত্যু হয়েছে ৩ জন শিশুর।মেঘালয়ে বন্যার কবলে মৃতদের পরিবারকে ৪ লক্ষ টাকা ক্ষতিপূরণ ঘোষণা করেছেন মুখ্যমন্ত্রী কনরাদ সাংমা। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি ও তাদের সমস্ত রকম সাহায্য করবে বলে আশ্বাস দিয়েছেন।

 আপনাদের জন্য রইল ট্যুইটারে পোস্ট করা সেই ভয়ঙ্কর ভিডিওটির লিংক :- 


Post a Comment

Previous Post Next Post