ক্যান্সার আক্রান্ত শিক্ষিকার মাইনে কেটে নিয়েছে স্কুল ; প্রধান শিক্ষককে পদচ্যুত করল হাইকোর্ট :-

 

 

              সুনিতা শর্মা, পেশায় শিক্ষিকা। তিনি ক্যান্সারে আক্রান্ত হওয়ায় তাঁর ১২ দিনের বেতন কেটে নেয় স্কুলের প্রধান শিক্ষক। বেতন কেটে নেওয়ার অভিযোগে আদালতের দ্বারস্থ হন তিনি। আদালতে ন্যায় বিচারের ওই প্রধান শিক্ষকের পদটি কেড়ে নেয় কলকাতা হাইকোর্ট এর বিচারপতি অভিজিৎ গাঙ্গুলি।

                 সুনিতা দেবীভদ্রেশ্বরের তেলেনিপাড়ার মহাত্মা গান্ধী বিদ্যাপীঠে শিক্ষকতা করেন। অবস্থিত এই স্কুলটির ভূগোলের শিক্ষিকা তিনি। ক্যান্সার আক্রান্ত হওয়ায় চিকিৎসা করানোর জন্য স্কুলের কাছে ছুটির আবেদন জানান তিনি, কিন্তু জটিল রোগে আক্রান্ত হয়ে চিকিৎসার জন্য ছুটি মেলেনি তার, এমনটাই অভিযোগ ওই শিক্ষিকার।

                 ব্লাড ক্যান্সারে আক্রান্ত সুনিতা শর্মা কিছুদিন আগে চিকিৎসার জন্য গিয়েছিলেন ভেলোরে। স্কুল সেই সময়ের জন্য ছুটি মঞ্জুর করেনি এমনটাই অভিযোগ জানান তিনি , উপরন্তু তাঁর ১২ দিনের বেতন কেটে নেয় স্কুল। তবে স্কুলের পক্ষ থেকে এ ধরনের  সমস্যার সম্মুখীন তিনি এই প্রথমবার হননি, এর আগেও বহুবার এ ধরনের সমস্যায় পড়তে হয়েছে তাকে, আদালতের কাছে এমন বক্তব্য প্রকাশ করেছেন তিনি।

             সুনিতা শর্মার এই মামলাটি বিচারপতি অভিজিৎ গাঙ্গুলীর হাতে পড়ে। অভিজিৎ গাঙ্গুলি জানান—ওই শিক্ষককে কোর্টে এসে জানাতে হবে তিনি কেন মহিলার বেতন কেটেছেন। শুনানির দিন শিক্ষকের কাছ থেকে পুরনো বক্তব্য শোনার পর বিচারপতি তাকে প্রধান শিক্ষক পদ থেকে বরখাস্ত করেন এবং ওই শিক্ষিকার বকেয়া মাইনে সম্পূর্ণটা ফিরিয়ে দেওয়ার কথা জানিয়েছেন স্কুলকে।

Post a Comment

Previous Post Next Post